Nature

শকুন সংরক্ষণ (Vulture Conservation) by Nature and Life Foundation

62 View(s)



শকুন বড় আকারের বর্জ্যভূক পাখি। মূলত রোগাক্রান্ত মৃত গবাদি পশু খাওয়ার মাধ্যমে শকুন বিভিন্ন রোগের জীবানু ধ্বংস করে এসব রোগ ছড়িয়ে যাওয়ার হাত থেকে রক্ষা করে। তাই প্রতিবেশব্যবস্থায় শকুনের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে। তবে ডাইক্লোফেনাক ও কিটোপ্রোফেন দ্বারা চিকিৎসাকৃত গবাদি পশুর মৃতদেহ খেলে শকুন দ্রুত অসুস্থ হয়ে মারা যায়। এভাবে চলতে থাকলে অচিরেই বাংলাদেশ থেকে শকুন বিলুপ্ত হয়ে যাবে। বিগত তিন দশকে বাংলাদেশ থেকে শকুনের সংখ্যা শতকরা ৯৯.৯৯ ভাগ হ্রাস পেয়েছে। তাই বাংলাদেশে শকুন সংরক্ষণে গৃহিত পদক্ষেপগুলোর মধ্যে রয়েছে গবাদি পশুর চিকিৎসায় ডাইক্লোফেনাক ঔষধের ব্যবহার সম্পূর্ণ নিষিদ্ধকরণ, শকুন সংরক্ষণ কমিটি গঠন, শকুন সংরক্ষণ কর্মপরিকল্পনা ২০১৬-২০২৫ প্রণয়ন, শকুনের জন্য বৃহত্তর সিলেট ও খুলনা অঞ্চলে দুইটি নিরাপদ এলাকা ঘোষণা, দেশব্যাপী সচেতনতামূলক কার্যক্রম পরিচালনাসহ বিভিন্ন গবেষণা কার্যক্রম। এছাড়া শকুন সংরক্ষণে সচেতনতা তৈরিতে প্রতিবছর সেপ্টেম্বর মাসের প্রথম শনিবার ‘আন্তর্জাতিক শকুন সচেতনতা দিবস’ পালিত হয়। মানুষের সচেতনতা ও সক্রিয় অংশগ্রহণের মাধ্যমেই বিলুপ্তির হাত থেকে রক্ষা করা সম্ভব পরিবেশের বন্ধু শকুন।

Comments

Theme by Anders Norén